আজ বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭ আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ সফর, ১৪৪৩ হিজরী
আজ বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭ আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ সফর, ১৪৪৩ হিজরী

শেয়ারবাজারে ২২ ব্যাংকের বিনিয়োগ ১৫ হাজার কোটি টাকা

দেশের শেয়ারবাজারে ২২টি ব্যাংকের সমন্বিত বিনিয়োগ রয়েছে প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা। ব্যাংকগুলোর মধ্যে বাজার মূলধন বিবেচনায় প্রথম স্থানে রয়েছে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক। ব্যাংকটির বিনিয়োগের পরিমাণ ৪৮.৯৯ শতাংশ। ৪২.৪৬ শতাংশ বিনিয়োগ করে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে দ্যা সিটি ব্যাংক। এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছে ট্রাস্ট ব্যাংক। তাদের বিনিয়োগের পরিমাণ ৩৯.৭৪ শতাংশ।

চলতি হিসাব বছরের ৩১ জুলাই পর্যন্ত ২২টি ব্যাংকের বিনিয়োগ বিশ্লেষণে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী, ব্যাংকগুলো শেয়ারবাজারে সমন্বিত মূলধনের সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ বিনিয়োগ করতে পারবে। তবে দেশের শেয়ারবাজারে ব্যাংকগুলো অতিমাত্রায় বিনিয়োগ করছে বলে কিছুদিন ধরে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। প্রকৃতপক্ষে শেয়ারবাজারে ব্যাংকগুলোর আরও ৪০ শতাংশ বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে।

এদিকে, ব্যাংকগুলোর সমন্বিত মূলধন রয়েছে ৪৭ হাজার ৬৪৬ কোটি ৩০ লাখ টাকা। সে হিসেবে ব্যাংকগুলোর শেয়ারবাজারে ৫০ শতাংশ হারে ২৩ হাজার ৮২৩ কোটি ১৫ লাখ টাকা বিনিয়োগের সুযোগ রয়েছে। কিন্তু ব্যাংকগুলো বিনিয়োগ করেছে ১৪ হাজার ৩৬৩ কোটি ৮৭ লাখ টাকা।

সূত্র জানায়, ২২টি ব্যাংকের মূলধন বিবেচনায় সবচেয়ে বেশি শেয়ার বিনিয়োগ করেছে আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক। এ ব্যাংকটি ২ হাজার ২৩৫ কোটি ৮৮ লাখ টাকার মূলধনের বিপরীতে ১ হাজার ৯৫ কোটি ২৭ লাখ টাকা বা ৪৮.৯৯ শতাংশ বিনিয়োগ করেছে।

দ্য সিটি ব্যাংক ২ হাজার ৬১৩ কোটি ৭০ লাখ টাকার মূলধনের বিপরীতে ১ হাজার ১০৯ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বা ৪২.৪৬ শতাংশ বিনিয়োগ করে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। ট্রাস্ট ব্যাংক ১ হাজার ৫২৫ কোটি ৪২ লাখ টাকার মূলধনের বিপরীতে ৬০৬ কোটি ১৯ লাখ টাকা বা ৩৯.৭৪ শতাংশ বিনিয়োগ করে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে।

এছাড়া অন্যান্য ব্যাংকগুলোর মধ্যে- ব্যাংক এশিয়ার ৮৬১ কোটি ১৫ লাখ টাকা বা ৩৬.৭৬ শতাংশ, মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ৫৬১ কোটি ৬২ লাখ টাকা বা ৩৫.৮১ শতাংশ, এনসিসি ব্যাংক ৭১০ কোটি ৪৮ লাখ টাকা বা ৩৫.৭৮ শতাংশ, ইস্টার্ন ব্যাংক ৮৬৭ কোটি ১৫ লাখ টাকা বা ৩৪.৪০ শতাংশ, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক ৫৯৯ কোটি ৪৮ লাখ টাকা বা ৩৩.৩৬ শতাংশ, প্রিমিয়ার ব্যাংক ৮৫৮ কোটি ৩৩ লাখ টাকা বা ৩৩.০৭ শতাংশ, প্রাইম ব্যাংক ৮৬৭ কোটি ১৫ লাখ টাকা বা ৩২.৩৮ শতাংশ, মার্কেন্টাইল ব্যাংক ৬৩৭ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বা ৩২.২২ শতাংশ, ওয়ান ব্যাংক ৫৪৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা বা ৩২.১৫ শতাংশ, ইউসিবি ব্যাংক ১ হাজার ৪৮ কোটি ৯২ লাখ টাকা বা ৩১.৮৬ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ৫৩২ কোটি ৯৫ লাখ টাকা বা ৩১.৭৭ শতাংশ, এনআরবিসি ব্যাংক ১৪৩ কোটি ৯৩ লাখ টাকা বা ২৪.৭১ শতাংশ, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ৪১৭ কোটি ৩১ লাখ টাকা বা ২৩.৮৩ শতাংশ, ব্র্যাক ব্যাংক ১ হাজার ৭ কোটি ৫ লাখ টাকা বা ২৩.৪৯ শতাংশ, এক্সিম ব্যাংক ৫৮০ কোটি ৭৮ লাখ টাকা বা ২০.৫৯ শতাংশ, যমুনা ব্যাংক ৩৪০ কোটি ৪১ লাখ টাকা বা ১৯.৯৭ শতাংশ, ইসলামী ব্যাংক ৬৭২ কোটি ৮৭ লাখ টাকা বা ১৭.৫০ শতাংশ ও এবি ব্যাংকের ২৩৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা বা ১৫.১৬ শতাংশ বিনিয়োগ রয়েছে শেয়ারবাজারে।