আজ শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ১৫ শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শ জিলহজ, ১৪৪২ হিজরী
আজ শুক্রবার, ৩০ জুলাই, ২০২১, ১৫ শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শ জিলহজ, ১৪৪২ হিজরী

দুপুরের আগেই সারাদেশে করোনা ও উপসর্গে ১৭২ মৃত্যু

করোনাভাইরাসের ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে সারাদেশে। সবশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে ১৭২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন জেলার করোনার চিত্র তুলে ধরা হলো-

রাজশাহী: রামেকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতদের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জন মারা গেছেন। আর করোনা নেগেটিভ হয়ে ৪ ও উপসর্গ নিয়েই মারা গেছেন ১৪ জন। এই সময়ে হাসপাতালটির দুটি পিসিআর ল্যাবে ৪৩০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৪৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৪ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

নাটোর: নাটোর সদর হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ৩ জনের মৃত্যু।

খুলনা: গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার চারটি হাসপাতালে করোনাভাইরাসে আরও ১২ জন মারা গেছেন।

সাতক্ষীরা: সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে একজন করোনায় ও ৮ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৩৮০ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৫১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৪২ শতাংশ।

চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ও উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। তারা সবাই করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ১০ জন করোনা ও উপসর্গ নিয়ে দুজন মারা গেছেন। এ ছাড়াও ২৪ ঘণ্টায় ৩২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষায় গতদিনের চেয়ে শনাক্তের হার ৭ বেড়ে ৩৬ শতাংশ হয়েছে।

ঝিনাইদহ: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৮৭ জন।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৭ জন করোনা শনাক্ত হয়ে এবং ১২ জন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৫৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৮৩ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ২৬ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

বরিশাল: বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ১৩ জন মারা গেছেন। এখন পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৪৩ জনে। হাসপাতালটির পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৮ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ১১৮ জনের পজিটিভ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজার ৩০৬ জন। ২৪ ঘণ্টায় জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ২০২ জন। এর মধ্যে ৭২ জনই সিটি করপোরেশনএলাকার বাসিন্দা।

ফরিদপুর: ফরিদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে করোনা আক্রান্ত ৬ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ৪ জন মারা গেছেন। পিসিআর ল্যাবে ২৬২ নমুনা পরীক্ষায় ১০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

টাঙ্গাইল: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। ৫৯২টি নমুনা পরীক্ষায় ২০৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩৪ দশমিক ৬৩ শতাংশ।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একদিনেই মারা গেলেন ১০ জন। একই সময়ে নতুন করে আরও এক হাজার ৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এ ছাড়া করোনা ভাইরাস ও উপসর্গে গত ২৪ ঘণ্টায় ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ জন, গাজীপুরে ৩ জন, নেত্রকোনায় ৩, রংপুরে ৪, সিলেটে ৭ জন, বগুড়ায় ১৪ জন মারা গেছেন।